রণবীরের প্রস্তাব বাতিল করলেন আলিয়া !

ফ্যান্টাসি ড্রামা ‘ব্রহ্মাস্ত্র’-র মুক্তির আগেই একসঙ্গে পাওয়া গেল রণবীর কাপুর ও আলিয়া ভাটকে। দর্শক দেখতে পেল তাদের অনস্ক্রিন রসায়ন। বলিউডের লাভবার্ডস তাদের প্রথম বিজ্ঞাপনে মুগ্ধ করল ফ্যানেদের। ই-কমার্স পোর্টাল ফ্লিপকার্টের জন্য একটি বিজ্ঞাপন করেছেন তারা। সেখানেই তাদের মিষ্টি স্ক্রিনপ্রেজেন্সে মোহিত জনগণ। বিজ্ঞাপনে দু’জন ছোট সদস্যকেও দেখা যায়, যারা বড়দের মতো অভিনয় করছেন। আলিয়া রণবীরের প্রস্তাব খারিজ করে দেওয়ার পরই উদয় হন তারা।

শুধু এই বিজ্ঞাপণই নয়, ফ্লিপকার্টের জন্য আরও দুটো অ্যাড শুট করেছেন তারা। ছবি মুক্তির আগে এই চমকে আপ্লুত রণবীর-আলিয়ার ফ্যান কুল। বিগত কিছুদিন ধরেই নিজেদের সম্পর্ক নিয়ে প্রকাশ্যে কথা বলছেন রণবীর-আলিয়া। সম্প্রতি রাজি ছবির জন্য পুরস্কার নিতে গিয়ে মঞ্চেই ধন্যবাদ জানিয়েছেন কাপুর পুত্রকে। রণবীরের পরিবারেও বেশ ঘনিষ্ঠ আলিয়া। নিউইয়র্কে ঋষি কাপুরের সঙ্গেও দেখা করেছেন অভিনেত্রী।

পরিণীতির জন্য কতদূর যাবেন অর্জুন কাপুর? বৃহস্পতিবার বহু প্রতীক্ষিত ছবি নামাস্তে ইংল্যান্ডের ট্রেলার মুক্তি পেয়েছে এবং টুইটারে তা ইতিমধ্যে ট্রেন্ড করতে শুরু করেছে। ছবিতে কেন্দ্রীয় চরিত্রে অভিনয় করেছেন অর্জুন কাপুর এবং পরিণীতি চোপড়া। আর বলা বাহুল্য তাঁদের দুজনকে একসঙ্গে অসাধারণ দেখাচ্ছে। তিন মিনিটের ট্রেলারে এই জুটির মজাদার প্রেমের কাহিনী প্রত্যক্ষ করছে দর্শক।

তবে একথা বলা কঠিন ট্রেলারে আমাদের অর্জুনের দেশি স্টাইল নাকি পরিণীতির স্বাধীন মহিলার চরিত্র কোনটা বেশি ভাল লেগেছে! ট্রেলারের প্রথম অংশে পাঞ্জাবের ছোঁয়া রয়েছে। আর অন্যদিকে লন্ডনে এই দম্পতির জীবন কেমন তা তুলে ধরা হয়েছে। বিপুল অম্রুতলাল পরিচালিত নমস্তে ইংল্যান্ড আগামী ১৯ অক্টোবর মুক্তি পাবে। বৃহস্পতিবার সোশ্যাল মিডিয়ায় ছবির ট্রেলার শেয়ার করে অর্জুন কাপুর লেখেন, “ভালবাসার জন্য আপনি কতদূর যেতে পারেন? নামাস্তে ইংল্যান্ডের ট্রেলার আপনাদের সামনে পেশ করা হল।”

ট্রেলার মুক্তির আগে ছবির কেন্দ্রীয় অভিনেত্রী পরিণীতি চোপড়া আবেগতাড়িত হয়ে ইনস্টাগ্রামে একটা নোট শেয়ার করেন। যেখানে তিনি নিজের নামাস্তে লন্ডন ছবির শুটিং-এর জার্নির বর্ণনা করেন। তিনি লেখেন, “ট্রেলার মুক্তির আগের সন্ধ্যায় দাঁড়িয়ে আমি আমার কেরিয়ারের সবচেয়ে বড় ছবির কথা বলতে গিয়ে কিছুটা আবেগ তাড়িত না হয়ে পারলাম না। এই ছবিতে অভিনয়ের স্বপ্ন আমি বহুদিন ধরে দেখেছি। এই ছবিতেই আমি প্রথম বার ভারতের ঐতিহ্যবাহী পোশাকে সেজে সেটে দাঁড়িয়ে ছিলাম, আমার মনে হচ্ছিল আমি বাড়িতেই রয়েছি।”

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *