বেকার ভাতা পাবেন যদি আপনার চাকরি না হয় !

বিশ্বের বিভিন্ন দেশে সাধারণ মানুষকে পেনশন দেয়া হয়। এই পদ্ধতিকে ‘ইউনিভার্সাল পেনশন’ পদ্ধতি বলা হয়েছে। নাগরিকের দেয়ার ভ্যাট, ট্যাক্স বা অন্যান্য অর্থ থেকে এ সুবিধা নিশ্চিত করে সরকার। এবার বাংলাদেশেও এই পদ্ধতি চালু করতে যাচ্ছে সরকার। এ লক্ষ্যে শিগগিরই গঠন করা হবে ‘ইউনিভার্সাল পেনশন অথরিটি’। বৃহস্পতিবার জাতীয় সংসদে ২০১৯-২০ অর্থবছরের প্রস্তাবিত বাজেট বক্তৃতায় অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল এ পরিকল্পনার কথা জানান।

এর আগেও ইউনিভার্সাল পেনশনের প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন সাবেক অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত। তবে তা এখনও বাস্তবায়ন সম্ভব হয়নি। জানা গেছে, ইউনিভার্সাল পেনশন পদ্ধতি চালু করতে আরও অন্তত ৩ থেকে ৪ বছর সময় লাগবে। এটি যেন দ্রুত করা যায় এজন্য ‘ইউনিভার্সাল পেনশন অথরিটি’ শিগগিরই গঠন করা হবে। মাইকে ঘোষণা দিয়ে পিটিয়ে মারা হয় খুনিকে কুমিল্লায় দেবিদ্বারে বুধবার সকালে মা-ছেলেসহ চারজনকে কুপিয়ে হত্যাকারী মোখলেসকে মসজিদের মাইকে ঘোষণা দিয়ে পিটিয়ে হত্যা করা হয়েছে।

প্রত্যাক্ষদর্শী মরিয়ম বেগম বলেন, মসজিদের মাইকে ঘোষণা দেয়া হয় ‘মোখলেস মানুষকে এলোপাতারি কুপিয়ে মারছে, সবাই একত্র হয়ে তাকে আটকান, নইলে আরো লাশ পড়বে।’ এরপর শত শত মানুষ জড়ো হয়ে লাঠি ও বাঁশ নিয়ে মোখলেসকে ধাওয়া করে। মোখলেস প্রাণভয়ে পালানোর সময় পড়ে গিয়ে গণপিটুনিতে নিহত হয়। দেবীদ্বারে ৪ জনকে কুপিয়ে হত্যা, গণপিটুনিতে ঘাতকের মৃত্যু মোখলেসের স্ত্রী রাবেয়া আক্তার বলেন, আমার স্বামী মাদকাসক্ত বা মানসিক রোগী ছিলেন না।

সকালে ঘুম থেকে উঠেই তিনি চলে যান। কিন্তু তিনি কেন মানুষ মেরেছেন জানি না। আমার মনে কোন কষ্ট নেই। তিনি তার কর্মফল পেয়েছেন। দেবিদ্বার থানার ওসি মো. জহিরুল আনোয়ার জানান, রক্তমাখা ধারালো ছেনি উদ্ধার করা হয়েছে মরদেহ মর্গে পাঠানো হয়েছে। মোখলেসের স্ত্রী ও ভাবিকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ডিজিটাল বিশ্ববিদ্যালয়ে নিয়োগ ৫৯ জনকে নিয়োগ দেবে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ডিজিটাল বিশ্ববিদ্যালয়। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ডিজিটাল বিশ্ববিদ্যালয় (বিডিইউ) বিভিন্ন পদে কর্মকর্তা-কর্মচারী নিয়োগের জন্য বাংলাদেশি নাগরিকদের থেকে দরখাস্ত আহ্বান করেছে। আগ্রহী প্রার্থীদের অনলাইনের মাধ্যমে আবেদন করতে পারবেন।

আরো দেখুন>>> বাংলাদেশ থ্যালাসেমিয়া অ্যান্ড ক্যান্সার হসপিটালে নিয়োগ পদের নাম এখানে মোট ৩৮টি পদে নিয়োগ দেয়া হবে। পদসংখ্যা ৩৮টি পদে মোট ৫৯ জনকে নিয়োগ দেয়া হবে। শিক্ষাগত যোগ্যতা ও অভিজ্ঞতা যেকোনো স্বীকৃত শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান থেকে স্নাতক বা স্নাতকোত্তর পাসসহ উচ্চমাধ্যমিক, মাধ্যমিক বা অষ্টম শ্রেণি পাস প্রার্থীরা বিভিন্ন পদের জন্য আবেদন করতে পারবেন। কিছু পদের জন্য কম্পিউটার চালনায় দক্ষতা ও উক্ত পদের জন্য কাজের অভিজ্ঞতার প্রয়োজন আবশ্যক। আবেদনকারীর বয়সসীমা ন্যূনতম ১৮ থেকে অনূর্ধ্ব ৩০ বছরের মধ্যে হতে হবে। বেতন স্কেল বিভিন্ন পদের জন্য জাতীয় বেতন স্কেল-২০১৫ অনুযায়ী বেতন ভাতা প্রদান করা হবে। আবেদনের নিয়ম আগ্রহী প্রার্থীদের অনলাইনের (http://jobs.bdu.ac. bd) মাধ্যমে আবেদনপত্র পূরণ করতে হবে।

এ ছাড়া আবেদনের সম্পূর্ণ প্রক্রিয়া বিজ্ঞপ্তিতে উল্লেখ করা আছে। আবেদনের সময়সীমা অনলাইনের মাধ্যমে আবেদন ও ফি প্রদান শুরু হয়েছে ২৬ জুন, ২০১৯ রাত ১২টায় এবং শেষ সময় ১৭ জুলাই, ২০১৯ বিকেল ৫টা। সূত্র : বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ডিজিটাল ইউনিভার্সিটি ওয়েবসাইট ১২ প্রতিষ্ঠানকে ৪৮ লাখ টাকা জরিমানা, সিলগালা নিজস্ব প্রতিবেদক ডেইলি-বাংলাদেশ ডটকম মেয়াদোত্তীর্ণ সামগ্রী, বেবি ডায়াপার রিপেক করা ও নকল প্রসাধনী তৈরী করায় রাজধানীর সোয়ারীঘাট এলাকায় ৫টি দোকান ও ৭টি গোডাউনকে ৪৮ লাখ টাকা জরিমানা এবং বিভিন্ন মেয়াদে সাজা দিয়েছে র‌্যাবের ভ্রাম্যমাণ আদালত।

সেইসঙ্গে প্রতিষ্ঠানগুলোকে সিলগালা করে দেয়া হয়েছে। মঙ্গলবার দুপুর ১২টা থেকে রাত সোয়া ৪টা পর্যন্ত এ অভিযান চালানো হয়। কর ফাঁকি দিয়ে আমদানি নিষিদ্ধ, অনুমোদন বিহীন, মেয়াদোত্তীর্ণ, বিএসটিআই এর নকল সিল যুক্ত বিভিন্ন প্রসাধনী, মানব স্বাস্থ্যের জন্য ক্ষতিকর ও মানহীন পণ্য বাজারজাত করার অপরাধে সাপুয়ান এন্টারপ্রাইজ, আজিম ট্রেডিং, মা ইমিটেশন জুয়েলারি, রফিক ব্রাদার্স ও সালমান এন্টারপ্রাইজ এর মালিকদের এই সাজা দেয়া হয়।

ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করেন র‌্যাবের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. সারোয়ার আলম। এ সময় আদালতকে সহায়তা করে র‌্যাব-১০ এর সিপিসি-৩ এর কমান্ডার মেজর মোহাম্মদ আনিসুজ্জামান এর নেতৃত্বে একটি দল ও বিএসটিআই এর কর্মকর্তারা। নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. সারোয়ার আলম জানান, আমদানিই করা হয়েছে মেয়াদোত্তীর্ণ বিভিন্ন প্রসাধনী সামগ্রী। বিএসটিআই এর নকল সিলযুক্ত শিশুদের মেয়াদোত্তীর্ণ ডায়াপারের মেয়াদ শেষ হলেও আরো ৩ বছর বাড়িয়ে বাজারজাত করা হচ্ছে।

দীর্ঘদিন যাবৎ তারা এ কাজ করছে। তারা ভাবেনি নিষ্পাপ শিশুদের কথা। এসব ব্যবহারে শিশুদের নরম ত্বকের কি পরিণতি হতে পারে। এসব অপরাধে ৭ জনকে ২ বছর করে কারাদণ্ড, ৩ জনকে বিভিন্ন মেয়াদে কারাদণ্ড ও ৪৮ লাখ টাকা জরিমানা করা হয়। ৫টি দোকান ও ৭টি গোডাউন সিলগালা করে বন্ধ করে দেয়া হয়। এ সময় ২ কোটি টাকার নকল প্রসাধনী সামগ্রী উদ্ধার করা হয়। পরে উদ্ধার করা এসব নকল ও মেয়াদোত্তীর্ণ সামগ্রী ধ্বংস করা হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *