‘প্রয়োজনে চীনের মতো কম সময়ে হাসপাতাল বানানোর অর্থও দেব’ !

ক’রোনা মোকাবিলায় আর্থিক ঘাটতি নেই জানিয়ে অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল বলেছেন, যে কোনো প্রয়োজনে যতো অর্থই লা’গুক তা ব্যয় করার সক্ষমতা সরকারের আছে।বুধবার (১৮ মার্চ) বিকেলে সচিবালয়ে সরকারি ক্রয় সং’ক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটির সভা শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি এ কথা বলেন।

তিনি বলেন, চীনের মতো বিশেষ কার্য সম্পাদনের জন্য কম সময়ের মধ্যে হাসপাতালও যদি তৈরি করতে হয় সেগুলো করার জন্য আমরা স্বাস্থ্যমন্ত্রণালয়কে সাহায্য করবো।যাতে তারা তাদের কাজগুলো সুন্দরভাবে এবং ঠিকভাবে করতে পারে।

আপনি সু’স্থ ও বেঁচে থাকলে আত্মীয়-পরিজন বন্ধু-বান্ধবের সাথে আড্ডা দেয়ার অনেক সুযোগ পাবেন

একইসঙ্গে সরকারি নির্দেশনা না মানলে জেল-জ’রিমানা হবে বলেও সতর্ক করে দিয়েছেন দেশটিতে বসবাসকারীদের।সোমবার (১৬ মার্চ) রাতে টেলিভিশনে জাতির উদ্দেশ্যে দেয়া ভাষণে বলেন,

আমরা স্বাস্থ্যগত যু’দ্ধের মধ্যে রয়েছি তবে আমাদের মনোবল হারালে চলবে না, সম্মিলিতভাবে মোকাবেলা করতে হবে।তিনি তার ভাষণে এও বলেছেন, ফ্রান্সে কাউকেই না খেয়ে মরতে দেয়া হবে না,

একই সাথে ব্যবসায়ীদের আশ্বাস দিয়ে তিনি বলেছেন, সংকটকালীন সময়ে যে আর্থিক ক্ষতি হবে সরকারের তরফ থেকে তার ভর্তুকি দেয়া হবে, পাশাপাশি এই সময়ে ঘর ভাড়া, বিদ্যুৎ বিল, পানি বিলসহ অন্যান্য করও মওকুফ করা হবে সকল নাগরিকের।

আসন্ন বগুড়া-১ (সারিয়াকান্দি-সোনাতলা) আসনের উপনির্বাচনে বিএনপি’র নির্বাচনী প্রচারণা গাড়ীতে হা’মলা ও ভা’ঙচু’রের ঘটনা ঘটেছে১৮ মার্চ বুধবার দুপুর ১টায় সারিয়াকান্দি উপজেলার চান্দিনা নোয়ারপাড়া এলাকায় এ ঘটনাটি ঘটে।

জানা গেছে, আগামী ২৯ মার্চ আসন্ন বগুড়া-১ (সারিয়াকান্দি-সোনাতলা) আসনের উপ-নির্বাচনে বিএনপি সমর্থিত প্রার্থী এ.কে.এম আহসানুল তৈয়ব জাকির তার কর্মী-সমর্থকসহ ধানের শীষ প্রতীকে ভোট চেয়ে

সারিয়াকান্দি উপজেলার চান্দিনা নোয়ার পাড়া এলাকায় নির্বাচনী প্রচারণা চালান এসময় নৌকা প্রতীক সমর্থিত মোটরসাইকেলের একটি বহর তাদের ওপর অ’তর্কিত হা’মলা চালিয়ে ধানের শীষ প্রতীকের পোস্টার লাগানো দুইটি গাড়ী ভা’ঙচুর এবং বিএনপি নেতাকর্মীদের মা’রপিট করে।

এ.কে.এম আহসানুল তৈয়ব জাকির এ প্রতিবেদককে বলেন, বুধবার দুপুওে তিনি ধানের শীষ প্রতীকে ভোট চেয়ে চান্দিনা নোয়ার পাড়া এলাকায় নির্বাচনী প্রচারণা চালাচ্ছিলেন এসময় আওয়ামী লীগের নৌকা প্রতীক সমর্থিত একটি মোটরসাইকেল বহর তাদের উপর অতর্কিত হা’মলা চালায়।

এতে তার নির্বাচনী প্রচারণার কাজে ব্যবহৃত একটি জীপ, একটি মাইক্রোবাস ও চারটি মোটরসাইকেল ভা’ঙচু’রসহ ১০-১২ জন নেতাকর্মী আ’হত হয়েছে। সারিয়াকান্দি থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আল আমিন এ প্রতিবেদককে বলেন,

এলাকায় দু’পরে নেতা কর্মীদের মাঝে ঝামেলা হয়েছে শুনে সেখানে পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। বর্তমানে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *